বিশ্বেরসব্বোর্চ আয়করা ১০ অভিনেত্রী

কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে গত মার্চ থেকে বড় পর্দায় চলচ্চিত্র প্রদর্শন বন্ধ থাকায় বিনোদন মাধ্যম বলতে গেলে টিভি আর ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম। বরার অপেক্ষা রাখে না চলচ্চিত্র তারকাদের প্রধান আয় হয় বক্স অফিসের পারফর্মেন্স থেকে। সিনেমা হল বন্ধ থাকায় মুভিস্টারদের আয়ে ছাড়িয়ে গেছেন টেলিস্টাররা।

‘মডার্ন ফ্যামিলি’ টিভি সিরিজখ্যাত সোফিয়া ভেরগারা ফর্বসের বার্ষিক সর্বোচ্চ সম্মানী তালিকায় অভিনেত্রীদের মধ্যে শীর্ষে আছেন। তার পরই আছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। তৃতীয় অবস্থানে আছেন ‘ওয়ান্ডার ওম্যান’ গ্যাল গাদত। চতুর্থ স্থানে আছেন মেলিসা ম্যাককার্থি, পঞ্চম মেরলি স্ট্রিপ। গত বছরে, স্কারলেট জনসন হলিউডে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়ার তালিকার শীর্ষে ছিলেন। তবে এবছরের তালিকায় নতুন নাম এমলি ব্লান্ট। এমিলি ব্ল্যান্ট রয়েছেন ষষ্ট স্থানে। সপ্তম নিকোল কিডম্যান। ‘গ্রে’জ অ্যানাটমি’ তারকা এলেন পম্পে স্থান পেয়েছেন আটে, ‘দ্য হ্যান্ডমেইড’স’ টেল’ তারকা এলিজাবেথ মস নয়ে। দশে আছেন ‘হাউ টু গেট অ্যাওয়ে উইথ মার্ডার’ তারকা ভায়োল ডেভিস। তার আগামী নেটফ্লিক্স ফিল্ম ‘মা রেইনি’জ বটম’।

গত বছরের জুন মাস থেকে চলতি বছরের জুন পর্যন্ত পারিশ্রমিকের পরিমাণের হিসেবের ভিত্তিতে এই তালিকা প্রকাশ করে ফোসর্ব।। বিস্তারিত জানাচ্ছেন: শামস্ বিশ্বাস

 

০১. সোফিয়া ভারগারা

বিশ্বের সর্বোচ্চ আয় করা অভিনেত্রীর মুকুট জিতে নিলেন মডেল-অভিনেত্রী সোফিয়া ভারগারা। সম্প্রতি ফোর্বস পত্রিকায় প্রকাশিত তালিকায় বলা হয়েছে, ২০২০ সালে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া অভিনেত্রীদের মধ্যে প্রথম স্থানে রয়েছে কলম্বিয়ান- আমেরিকান অভিনেত্রী সোফিয়া। এক বছরের তাঁর বার্ষিক আয় ৪৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার!

এবিসির জনপ্রিয় টেলিভিশন সিরিজ ‘মর্ডান ফ্যামিলি’ তারকাকে এবার দেখা যাবে ‘আমেরিকার গট ট্যালেন্ট’-এর বিচারক হিসাবে। এই রিয়ালিটি ট্যালেন্ট শো থেকে আসছে তার বার্ষিক আট অংকের আয়।মর্ডান ফ্যামিলিতেও তিনি সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নিতেন। এর সাথে রয়েছে ওয়ালমার্টে জিন্সের একটি লাইন। সোফিয়া ভারগারার লাইনের যত জিন্স বিক্রি করেছে ওয়ালমার্টে তা দিয়ে ৪টা আইফেল টাওয়ারের চেয়েও লম্ব টাওয়ার হবে। সোফিয়া ভারগারার আয়ের আরো কিছু উৎস হলো তার কিছু ভেঞ্চার। এর মধ্যে রয়েছে মার্কিন আসবাবের চেইন ‘রুম টু গো’ ফার্নিচার লাইন এবং বেশকিছু জনপ্রিয় পারফিউম। এর সাথে এন্ডোর্সমেন্ট এবং লাইসেন্সিং ডিল তো রয়েছে।

০২. অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে ট্রাডিশনাল সিনেমার আভিনেতা অভিনেত্রীদের আয়টা অনেক কমে গেছে। গত বছর স্কারলেট জনসন হলিউডে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়ার তালিকার শীর্ষে ছিলেন। এ বছর তিনি শীর্ষ ১০-এ নেই। অ্যাঞ্জেলিনা জোলি সেই সব চলচ্চিত্র আভিনেত্রীদের মধ্যে এক জন যিনি এ বছরও শীর্ষ অভিনেত্রীদের তালিকায় আছেন। এ বছরের তার আয়ের বড় অংশ এসেছে মার্ভেলের ইটারনালের জন্য। অ্যাঞ্জেলিনা জোলি এই সিনেমার জন্য পারিশ্রমিক নিয়েছেন প্রায় ৩০০ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে অ্যাঞ্জেলিনা জোলির আয় ছিল ৩৫.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

কোভিড-১৯ মহামারীর মহামারী চলাকালীন অভুক্ত বাচ্চাদের খাওয়ানোর জন্য, অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ‘নো কিড হাংরি’ তে ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান দিয়েছিলেন।

০৩. গাল গাদোত

করোনা ভাইরাসের কারণে হলিউডে একের পর এক সিনেমার মুক্তি পিছিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে ইজরায়েলি অভিনেত্রী গাল গাদোত অভিনীত বহুলপ্রতীক্ষিত সিনেমা ‘ওয়ান্ডার ওম্যান ১৯৮৪’। ওয়ান্ডার ওম্যানের ভূমিকায় না গাল গাদোত কে না দেখা গেলেও ঠিকি ৩১.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছেন তিনি। গাল গাদোতের আয়ের ২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার এসেছে নেটফ্লিক্সের ‘রেড নোটিস’ থেকে। আয়ের অংকটা আনেক বড় দেখালোও চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্টরা বলছে আয়টা নেটফ্লিক্সের ১৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের কন্টেন্ট বাজেটের খুব ছোট একটা অংশ।

 

 

০৪. মেলিসা ম্যাকার্থি

 

মেলিসা ম্যাকার্থি এ বছর স্বামী বেন ফ্যালকোন পরিচালিত দুটি স্ট্রিমিং ছবিতে অভিনয় করেছেন- একটি এইচবিও ম্যাক্স এবং নেটফ্লিক্সে একটি — এবং এনবিসির লিটল বিগ শটসকে হোস্ট করে। আগামী বছর ‘দ্য লিটল মার্ময়েড’ লাইভ-অ্যাকশন ভার্সনে উরসুলার চরিত্রে তাকে দেখা যাবে। সব মিলিয়ে তার আয়ের অংকটা ২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

 

 

 

০৫. মেরিল স্ট্রিপ

মার্কিন অভিনেত্রী ও গায়িকা মেরিল স্ট্রিপ সাম্প্রতিককালে বিশ্বের সর্বত্র সবচেয়ে প্রতিভাশালী এবং সম্মানীয় অভিনেত্রী হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছেন। তিনি তার চরিত্রে বৈচিত্রতা ও বিভিন্ন ভাষার দক্ষতার জন্য সুপরিচিত। রেকর্ড সংখ্যক ২১টি একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন গ্রহীতা স্ট্রিপ ৩টি একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়া তিনি ৩১টি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়নের মধ্যে ৮টি পুরস্কার লাভ করেন, যা মনোনয়ন ও বিজয়ের দিক থেকে সর্বাধিক। এ বছরের তার আয়ের পরিমান ২৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর মধ্যে ৫ মিলিয়ন এসেছে ‘লেট দেম অল টক’ থেকে। কিংবদন্তি পরিচালক স্টিভেন সোডারবার্গের কমেডি ‘লেট দেম অল টক’ এইচবিও ম্যাক্স ৩৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে কিনে নেয়। মেরিল স্ট্রিপের আয়ের বাকি অংশগুলো এসেছে ‘প্রম’ এবং গত বছরের ‘লিটল উইমেন’ থেকে।

০৬. এমিলি ব্লান্ট

এবছরের শীর্ষ তালিকায় নতুন নাম ব্রিটিশ-মার্কিন চলচ্চিত্র ও মঞ্চ অভিনেত্রী এমলি ব্লান্ট। ২২.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে তিনি রয়েছেন ষষ্ট স্থানে। এমিলি ব্লান্ট অভিনিত ১৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বাজেটের ‘এ কোয়েট প্লেস’ ৩৪১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছে। আগামী বছর মুক্তি পাবে এর সিক্যুয়ালে। আট-অঙ্কের অগ্রিম পরিশ্রমিক নিয়ে আলোচনা করেছেন। ‘জঙ্গল ক্রুজ’-এর জন্য উচ্চ সাত আংকের চেকও পেয়ছেন তিনি।

 

 

 

০৭. নিকোল কিডম্যান

২২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে অস্ট্রেলীয় অভিনেত্রী, চলচ্চিত্র প্রযোজক ও গায়িকা নিকোল কিডম্যান রয়েছেন শীর্ষ তালিকায় সপ্তম স্থানে। নিকোল কিডম্যান নেটফ্লিক্সের রায়ান মারফির ‘দ্য প্রম’-এর জন্য পেয়েছেন আট-অঙ্কের অগ্রিম পারিশ্রমিক। তিনি এইচবিও’র মিনিসিরিজ ‘আনডুইং’য়ে প্রতি পর্বের জন্য পাবেন ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

 

 

 

 

 

০৮. এলেন পম্পেও

১৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে সর্বচ্চ উপার্জনকারী অভিনেত্রীর তালিকায় আষ্টম স্থানে আছেন ‘গ্রে’স অ্যানাটমি’র এলেন পম্পেও। তিনি এই সিরিজে অভিনয় করছেন ‘মেরেডিথ গ্রে’ হিসেবে। ২০১৭ সালে চুক্তি পুনর্বিবেচনার পরে, পম্পিও এবিসি’র গ্রে অ্যানাটমির প্রতি পর্বের জন্য প্রায় ৫ লক্ষ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার নিয়ে থাকেন। এর সাথে সাথে তিনি সিন্ডিকেশন লাভের অংশ থেকে বছরে প্রায় ৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছেন।

 

 

 

 

০৯. লিজাবেথ মস

১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে সর্বচ্চ উপার্জনকারী অভিনেত্রীর তালিকায় নবম স্থানে আছেন ‘দ্য হ্যান্ডমেডেস টেল’-এর লিজাবেথ মস। ‘দ্য হ্যান্ডমেডেস টেল’-এ অভিনয় করার জন্য প্রতি পর্বে তিনি ‘হুলু’র কাছে থেকে নেন ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এ ছাড়া এ বছর মুক্তি প্রাপ্ত সারপ্রাইজ হিট ‘দ্যা ইনভিসিবল ম্যান’ থেকে প্রফিট শেয়ার পেয়েছেন। ৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বাজেটের সিনেমা গ্রস প্রফিট করেছে ১৩৪.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

 

 

 

১০. ভায়োলা ডেভিস

১৫.৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে সর্বচ্চ উপার্জনকারী অভিনেত্রীর তালিকায় দশম স্থানে আছেন মার্কিন অভিনেত্রী ও প্রযোজক ভায়োলা ডেভিস। ‘হাউ টু গেট অ্যাওয়ে উইথ মার্ডার’-এ ‘আননালিস কিটিং’-এর ভূমিকায় অভিনয় করে পান সাত অংকের চেক। ভায়োল ডেভিসের আগামী নেটফ্লিক্স ফিল্ম আগস্ট উইলসনের নটক ‘মা রেইনি’জ ব্লাক বটম’ অবলম্বনে ‘মা রেইনি’।

মন্তব্য করুন

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close Menu